আগস্ট ৭, ২০১৯ আগে আপডেট সকাল ৭:২৯ ; মঙ্গলবার ; ২২শে অক্টোবর, ২০১৯ ইং
facebook Youtube google+ twitter
×

 

কোরবানির ঈদকে সামনে ব্যস্ততা বেড়েছে বরিশালের কামারপল্লীতে

জাগো বরিশাল নিউজ ডেস্ক
১২:৫৯ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৭, ২০১৯

শহীদুল্লাহ সুমন :: আগামী ১২ আগষ্ট পবিত্র ঈদুল আজহা। এ ঈদকে সামনে রেখে প্রচণ্ড ব্যস্ত সময় পাড় করছে বরিশালের কামাররা। টুং-টাং শব্দে মুখর হয়ে কামারপল্লীতে দিন রাত ব্যস্ত সময় পার করছেন কামাররা। চলছে লোহার তৈরি নতুন দা, চাপাতি, ছুরি তৈরি। এর পাশাপাশি চলছে পুরনোগুলোতে শান দেওয়ার কাজ।

নগরীর হাটখোলা, নতুনবাজার, বাংলাবজার, নথুল্লাবাদ সেন্ট্রাল পয়েন্ট মার্কেট, পলাশপুর বৌ-বাজার বেলতলা, চাঁদমারী, তালতলী বাজার, সদর উপজেলার চরকাউয়া, সাহেবেরহাট, লাহারহাটসহ ছোট-বড় সব হাটের কামাররা এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভোর থেকে শুরু করে তাদের কাজ চলছে গভীর রাত পর্যন্ত।

সরেজমিনে দেখা গেছে, নগরীর কামারপট্টির কামারদের এখন দম ফেলার সময় নেই। একের পর এক ক্রেতা এসে দোকানে ভিড় করছেন। ফলে তাদের দোকান ছেড়ে যাওয়ারও কোন উপায় নেই। তাই সকাল, দুপুর বা রাতের খাবার তারা দোকানে বসেই সেরে নিচ্ছেন। পুরনো দুইটি দা, একটি বটি ও একটি ছুরিতে শান দেয়ার জন্য কামাররা ৩৫০ টাকা নিচ্ছেন। অন্যসময় যার মজুরি ছিল ১৫০টাকা। আর নতুন একটি ছোরা ৩৫০ থেকে ৪০০ টাকা, বিভিন্ন সাইজের চাক্কুু ৫০ থেকে একশ’ টাকা, বটি দুই থেকে ৩৫০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে।

হাটখোলা বাজারের বিমল কর্মকার বলেন, ঈদের আগে চাহিদা বেড়ে গেছে। এজন্য বর্তমানে সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত কাজ করতে হচ্ছে। গড়ে প্রতিদিন ২৫ থেকে ৩০টি কাজ করে প্রায় দুই হাজার টাকা আয় হচ্ছে। একটি বড় দা পাঁচ কেজির লোহা দিয়ে তৈরি করে মজুরিসহ আটশ’ টাকা, এক কেজি ওজনের কুড়াল তিনশ’, চাপাতি প্রকার ভেদে ৪৫০ টাকা থেকে ছয়শ’ টাকা, বিভিন্ন আকারের ছোরা ৩৫০ টাকা থেকে ৬৫০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। তবে ক্রেতাদের অভিযোগ, অন্য সময়ের চেয়ে এখন সকল মালামালের দাম দ্বিগুন রাখা হচ্ছে।

কোরবানির ঈদকে সামনে ব্যস্ততা বেড়েছে বরিশালের কামারপল্লীতে- আদনান অলি

 

বাঁশের হাটখোলার সুবাস কর্মকার বলেন, সারাবছরই আমাদের তৈরি মালামালের কমবেশি চাহিদা থাকে। তবে কোরবানীর ঈদে পশু কোরবানীর জন্য নতুন ছুরি, চাপাতি, চাক্কুর কদর অনেক বেড়ে যায়। তাই চাহিদার কথা মাথায় রেখে আগে থেকেই বেশকিছু জিনিস বানিয়ে রাখা হয়েছে।

চরকাউয়া বাজাজের সুখচান কর্মকার বলেন, আগে অন্য হাট-বাজারে প্রতিদিন বিভিন্ন লৌহজাত জিনিস বানিয়ে ৫৫০ থেকে ৭০০ টাকা আয় হতো। তবে ঈদের আগে লোহার তৈরি মালামালের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় এখন প্রতিদিন এক থেকে দুই হাজার টাকা আয় হচ্ছে। ঈদের চাহিদা অনুযায়ী সরবরাহ করতে গিয়ে তাদের রাত-দিন কাজ করতে হচ্ছে। তাদের এই কর্মব্যস্ততা থাকবে কোরবানীর ঈদের আগের দিন পর্যন্ত।

বরিশাল, লিড নিউজ
[addthis tool="addthis_inline_share_toolbox_nev1"]

আপনার মতামত লিখুন :

আমাদের ফেসবুক পাতা
এই বিভাগের আরো সংবাদ

প্রকাশকঃ নাসিমুল হক

সম্পাদকঃ অপূর্ব অপু

ভুইয়া ভবন (তৃতীয় তলা), ফকির বাড়ি রোড, বরিশাল ৮২০০।

মোবাইল:

ই-মেইল: jagobarisal@gmail.com
© কপিরাইট জাগোবরিশাল ২০১৮-২০১৯
টপ
  বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত   রিমান্ডে সেলিম এবং শামীম-খালেদ কারাগারে   প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলায় বিশ্বে বাংলাদেশ রোল মডেল   ফাহাদের ভাই চাইলে নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত: আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী   ভোলায় ২০ জেলের ইলিশ শিকারের দায়ে কারাদণ্ড   সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ থাকে বৃহস্পতি-শনিবার   আবরারকে দুই দফায় স্টাম্প দিয়ে শতাধিক আঘাত করে অনিক   ১১ হাজার গৃহহীন পাচ্ছেন দুর্যোগ সহনীয় ঘর   বুয়েটে অভিযান অব্যাহত,ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদকের কক্ষ সিলগালা   আবরার হত্যাকারীদের শাস্তির দাবিতে বরিশালে প্রতিবাদ সমাবেশ   বরিশালে অতিরিক্ত মদ্যপানে তিন যুবকের মৃত্যু   আমি শিশুদের শিশুবান্ধব নগরী উপহার দেব : মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ   বনমালী ছাত্রী নিবাসে অবৈধ সুযোগ-সুবিধা বন্ধে প্রশাসনের অভিযান ॥ নাখোশ কতিপয় নেত্রী   স্কুল ছাত্রী ধর্ষন, প্রধান আসামি র‌্যাব-৮ এর অভিযানে গ্রেপ্তার   কোরবানির ঈদকে সামনে ব্যস্ততা বেড়েছে বরিশালের কামারপল্লীতে   বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে চিকিৎসক সংকট, বাড়ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা   বরিশালে চাঁদাবাজিকালে ভূয়া দুই র‌্যাব সদস্য আটক   কাশ্মীরের জন্য প্রয়োজনে জীবন দেব : ফয়জুল করীম   বরিশালে চালককে শ্বাসরোধে হত্যা করে মোটরসাইকেল ছিনতাই   বরিশালে হাসপাতালে বেড়েই চলেছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা